মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ৫ মে ২০১১, ২২ বৈশাখ ১৪১৮
যুক্তরাষ্ট্র-পাকিস্তান সম্পর্কে তীব্র উত্তেজনা
লাদেন লুকিয়ে থাকার বিষয়ে জবাব চেয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা, হত্যা মিশনের কড়া সমালোচনা ইসলামাবাদের
ওসামা বিন লাদেন কিভাবে পাকিস্তানে লুকিয়ে থাকতে সমর্থ হয়েছিলেন। ওবামা প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তারা পাকিসত্মানী কর্তৃপৰের কাছে সেই প্রশ্নের জবাব চেয়েছেন। অপরদিকে, পাকিসত্মান লাদেনের বিরম্নদ্ধে পরিচালিত মার্কিন অভিযানকে 'এক অননুমোদিত একতরফা পদৰেপ' বলে অভিহিত করে এর কড়া সমালোচনা করেছে। এতে দুটি দেশের সরকারের মধ্যে উত্তেজনা দ্রম্নত আরও তীব্র রূপ নিল। আল কায়েদা নেতা পাকিসত্মানের রাজধানী থেকে সড়কপথে দু'ঘণ্টারও কম সময়ে পেঁৗছানো যায় এমন এক গ্যারিসন শহরে দৃশ্যত বছরের পর বছর ধরে বাস করছিলেন, . . .
বিন লাদেন ॥ প্রচলিত ধারণা ও বাস্তবতা
আল-কায়েদা নেতা ওসামা বিন লাদেন সম্পর্কে নানা ধরনের কথাবার্তা প্রচলিত আছে মানুষের মধ্যে। কেউ মনে করেন ওসামা মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ-এর সৃষ্টি। কারও মতে তিনি অঢেল সম্পদের মালিক ছিলেন। আবার কারও মতে মাদক ব্যবসার মাধ্যমে ওসামা অর্থ সংগ্রহ করতেন যা ব্যয় হতো আল কায়েদা পরিচালনায়। ওসামাকে ঘিরে এরকম অসংখ্য 'মিথ' ঘুরপাক খাচ্ছে: ওসামা সিআইয়ের সৃষ্টি ॥ ওসামা সিআইয়ের সৃষ্টি এরকম ধারনা প্রচলিত থাকলেও গত শতকের ৮০'র দশকের ওসামা ও তাঁর অনুসারীরা সিআইয়ের কাছ থেকে কোন প্রশিৰণ এবং অর্থ পাননি। পাকিসত্মানের . . .
'০৮ সালে লাদেনের বাসভবনের কয়েক শ' গজ দূরেই ছিল মার্কিন সেনা শিবির
উইকিলিকসের তথ্য পাকিস্তানের এ্যাবোটাবাদে ওসামা বিন লাদেনের বাসভবনের কয়েক শ' গজ দূরেই মার্কিন বাহিনীর আসত্মানা ছিল। ঘটনাটি ২০০৮ সালের অক্টোবর মাসের। উইকিলিকসের ফাঁস করে দেয়া দূতাবাসের গোপন বার্তা থেকে এ খবর পাওয়া গেছে। খবর গার্ডিয়ান অন লাইন। ২০০৮ সালের প্রথমদিকে গুয়ানতানামো বন্দী শিবিরে আটক এক ব্যক্তি লাদেনের অবস্থান সম্পর্কে জানিয়েছিল। একই সময় মার্কিন সেনারা সেখানে আসত্মানা গেড়েছিল। সেখানে অবস্থানকালে মার্কিন সেনারা ফ্রন্টিয়ার কোরের প্রশিৰকদের প্রশিৰণ দিত। এ্যাবোটাবাদে পাকিসত্মানের সামরিক . . .
পরস্পরবিরোধী খবর হোয়াইট হাউসের
ওসামা বিন লাদেনের জীবনের অনত্মিমমুহূর্তে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলোর বিষয়ে হোয়াইট হাউস থেকে পরস্পরবিরোধী খবর পাওয়া গেছে। সোমবার জানানো হয়, অস্ত্র ব্যবহার করে আত্মরৰা করার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। কিন্তু একদিন পরই প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয়, রবিবার রাতের ওই ঘটনার সময় তিনি নিরস্ত্র ছিলেন। উলেস্নখ্য, আল কায়েদাপ্রধান বিন লাদেন রবিবার মধ্যরাতে পাকিসত্মানের গ্যারিসন শহর এ্যাবোটাবাদের এক ভিলায় সিআইএ'র বিশেষ কমান্ডো অভিযানে নিহত হন। খবর গার্ডিয়ান অনলাইনের। সোমবার হোয়াইট হাউস জানায়, মার্কিন স্পেশাল কমান্ডো অভিযান . . .
পরিকল্পনা ফাঁস হওয়ার আশঙ্কায় পাকিস্তানকে জানানো হয়নি
সাক্ষাতকারে সিআইএপ্রধান
ওসামা বিন লাদেনকে হত্যা পরিকল্পনা সম্পর্কে পাকিসত্মানকে কিছুই জানানো হয়নি। লাদেনকে ওই অভিযান সম্পর্কে ইসলামাবাদ আগাম জানিয়ে দিতে পারে এই আশঙ্কায় পাকিসত্মানকে কিছু জানানো হয়নি। সিআইএ পরিচালক লিওন প্যানেটা মঙ্গলবার এক সাৰাতকারে একথা বলেন। খবর এএফপির। প্যানেটা টাইম ম্যাগাজিনকে বলেন, পাকিসত্মানকে কোনভাবে সম্পৃক্ত করলে অভিযান ব্যর্থ হয়ে যেতে পারে। তারা লাদেনকে আগেভাগেই সতর্ক করে দিতে পারে এই আশঙ্কায় পাকিসত্মানকে কোনভাবেই এই অভিযানে না জড়ানোর সিদ্ধানত্ম নেয়া হয়। প্যানেটা ম্যাগাজিনকে বলেন, বি-২ বোমারম্ন . . .
লাদেনকে সাগরে দাফন করায় আলেমরা ক্ষুব্ধ
মুসলিম আলেমরা ওসামা বিন লাদেনকে সাগরে দাফন করাকে ইসলামী ঐতিহ্যের বরখেলাপ বলে উলেস্নখ করেছেন। তারা বলেন, এ কারণে উগ্রবাদীরা আমেরিকান লৰ্যবস্তুতে প্রতিশোধ হামলা চালাতে উদ্বুদ্ধ হতে পারে। খবর ওয়েবসাইট। বিপুলসংখ্যক আলেম সাগর বৰে লাদেনকে দাফন করা অস্মানজনক মনে করেন। ইসলামী রীতি অনুযায়ী মৃতের মাথা কেবলামুখী করে কবর দেয়া হয়ে থাকে। আলেমরা বলেন, সমুদ্রে দাফন করা যেতে পারে, তা অবশ্যই বিশেষ ৰেত্রে। সমুদ্র ভ্রমণের সময় কেউ মারা গেলে তা হতে পারে। কায়রোর আল আজহার মসজিদের গ্র্যান্ড ইমাম শেখ আহমেদ আল তৈয়াব সোমবার . . .
পরমাণু স্থাপনায়ও যুক্তরাষ্ট্র হামলা চালাতে পারে
পাক সেনা নেতৃত্ব উদ্বিগ্ন
পাকিস্তানের বিপুলসংখ্যক সামরিক নেতৃত্ব আমেরিকার লাদেন হত্যা মিশনে অসন্তুষ্ট। যুক্তরাষ্ট্র পাকিসত্মানের পরমাণু স্থাপনায় একই ধরনের হামলা চালাতে পারে বলে তারা শঙ্কিত। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইন। মার্কিন হেলিকপ্টারগুলো যেভাবে পাকিসত্মানের ভূখ-ে প্রবেশ করেছে তাতে চারভাগের তিন ভাগ সামরিক কর্মকর্তা উদ্বিগ্ন। পাকিসত্মান সরকার বা নিরাপত্তা সংস্থাকে এ ব্যাপারে কোন খবর না দিয়ে মার্কিন এই অভিযান দেশটির সেনা কর্মকর্তাদের উদ্বেগের কারণ হিসেবে দেখা দিয়েছে। ভারতের গোয়ন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করা হয়। সূত্র . . .
চুয়াডাঙ্গায় স্কুলছাত্রী ধর্ষিত ॥ ধর্ষক গ্রেফতার
নিজস্ব সংবাদদাতা, চুয়াডাঙ্গা, ৪ মে ॥ জেলার দামড়হুদা উপজেলা শহরের ব্রিজপাড়ার ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রী মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা বুধবার মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ধর্ষক আমিরম্নল ইসলাম (৩৪) কে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, দামুড়হুদা উপজেলা শহরের ব্রীজপাড়ার দরিদ্র কৃষকের ১৩ বছরের মেয়ে স্থানীয় বালিকা বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়ির পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় পার্শ্ববর্তী হাউলী গ্রামের আনছার আলী মেম্বারের ছেলে আমিরম্নল ইসলাম তাকে জোরপূর্বক একটি মুরগি ফার্মে নিয়ে . . .