মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ১৫ আগষ্ট ২০১১, ৩১ শ্রাবণ ১৪১৮
শোকাবহ ১৫ আগস্ট
ড. আমিনুল ইসলাম
৩৬ বছর আগে কয়েকজন চক্রান্তকারী সেনা নির্মমভাবে হত্যা করে বাঙালী জাতির মহান নেতা, মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক, স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। হত্যা করে বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, যুবনেতা শেখ ফজলুল হক মনি, কৃষক নেতা ও মন্ত্রী আব্দুর রব সেরনিয়াবাতকে। হত্যা করা হয় বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব, বঙ্গবন্ধুর শিশুপুত্র রাসেলসহ পরিবারের উপস্থিত সকল সদস্যকে। একই সময় এই ঘাতক খুনী চক্রের হাতে নিহত হন বঙ্গবন্ধুর প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা কর্নেল জামিল। নিষ্ঠুরতায় . . .
বাঙালীর বিনিদ্র চোখে প্রতিশোধ জ্বলে
সুভাষ সিংহ রায়
অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর এক কবিতা লিখেছিলেন, "পিতা জেনে যাও, তোমার এ অবিবেকী অন্যায় হত্যার রক্তঘাতী বিনিময় হবে..../বিনিদ্র চোখের দেখো শুধু প্রতিশোধ জ্বলে।" কবি আসাদ চৌধুরী তাঁর কবিতায় লিখেছেন এভাবে: যে ঘাতক তোমার সুবিশাল ছায়াতলে থেকে কেড়ে নিলো তোমার নিঃশ্বাস- শিশুঘাতী, নারীঘাতী ঘাতকেরে যে করিবে ক্ষমা তার ক্ষমা নাই_ আমরণ অনুগত, তোমারই অবাধ্য হবো আজ, পিতা, অনুমতি দাও। কবি মুহম্মদ নূরুল হুদার একটি কবিতা নাম 'পনেরো আগস্ট'। কবিতার কয়েকটি চরণ . . .
স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব
প্রফেসর ড. মু. আব্দুল জলিল মিয়া
একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে এক সাগর রক্ত পেরিয়ে বাংলার মানুষ উপনীত হয়েছিল কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে। অর্জিত হয়েছিল মহান বিজয়। বাঙালীর ইতিহাসে ঘটে যাওয়া তু৫২'র ভাষা আন্দোলন, যুক্তফ্রন্ট ঘোষিত ২১ দফা, বাঙালীর মুক্তির সনদ ঐতিহাসিক ৬ দফা, ছাত্রলীগের ১১ দফা, ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিসংগ্রামের মাধ্যমে পৃথিবীর মানচিত্রে স্বাধীন বাংলাদেশের অভু্যদয়, '৭১ পরবর্তী যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশের পুনর্গঠন ইত্যাদিকে সামনে থেকে যিনি সরব, গৌরব উজ্জ্বল দৃঢ় নেতৃত্ব দান করেছেন তিনি ইতিহাসের মহানায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ . . .
শোক হোক শক্তি
মাহবুব-উল আলম খান
১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। তাঁর পরিবারের দু'জন সদস্য শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা দেশে না থাকায় অলৌকিকভাবে বেঁচে গেছেন। ঘাতকেরা জাতির জনকের নিকট আত্মীয়দেরও রেহাই দেয়নি। উদীয়মান মেধাবী যুবনেতা যুবলীগ প্রধান শেখ ফজলুল হক মণি, তাঁর সন্তানসম্ভবা স্ত্রী, কৃষক নেতা আবদুর রব সেরনিয়াবাত, তাঁর পরিবারের কয়েক সদস্যও ঘাতকের বুলেট হতে রক্ষা পায়নি। ওই দিন দেশপ্রেমিক সেনা কর্মকর্তা কর্নেল জামিল নিজে গাড়ি চালিয়ে এসে রাষ্ট্রপতিকে . . .