মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ২৫ জুলাই ২০১১, ১০ শ্রাবণ ১৪১৮
ইন্দিরা গান্ধীকে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা
শাহরিয়ার কবির
বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৪০তম বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে_ '৭১-এর মুক্তিযুদ্ধে ভারত এবং অন্য যে সব দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানসহ বিশিষ্ট নাগরিকবৃন্দ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন তাঁদের রাষ্ট্রীয়ভাবে সম্মাননা প্রদান করা হবে। এই তালিকার শীর্ষে রয়েছে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধীর নাম। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অনন্যসাধারণ অবদানের জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধীকে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ সম্মান 'স্বাধীনতা সম্মাননা' . . .
সিডনির মেলব্যাগ
শীতার্ত সিডনি, উত্তপ্ত স্বদেশ ও ভবিষ্যত
অজয় দাশ গুপ্ত
প্রচণ্ড শীতের দাপটে কাবু হয়ে আছি আমরা। ডাউন আন্ডার দ্য ওয়ার্ল্ড নামে পরিচিত প্রশান্ত অঞ্চল পৃথিবীর একেবারে অন্যপ্রান্তে। অন্যান্য দেশে যখন হয় গ্রীষ্ম অথবা মৌসুমী অঞ্চলের বারিপাত, এদিকে তখন হিমবাহ। প্রায় গৃহবন্দী মানুষ কনকনে ঠাণ্ডা হাওয়ার দাপটে প্রকৃতির কাছে নতজানু। এই শীতলতার ভেতরও বাংলাদেশের উত্তেজনা মাঝে মধ্যে দোলা দিয়ে যায়। দেশের পরিবশে, অস্থির, উন্মাদনা, রাজনীতির উষ্ণতায় জেগে উঠি আমরা। বলাবাহুল্য হরতালের প্রভাব, এ নিয়ে তর্ক-বিতর্ক এখানকার বাঙালীদেরও তর্কপ্রবণ করে তোলে। পার্থক্য এই, বাদানুবাদের . . .
ইভিএম ॥ দূর হোক সন্দেহ আর অনাস্থা
ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ
ড. একেএম রিয়াজুল হাসান ও এমজি কিবরিয়া সরকার
এক. সম্প্রতি নির্বাচন কমিশন ই-ভোটিং নিয়ে কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা করেছে। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২ লাখ ইভিএম_ ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন-এর আওতায় সারা দেশে নির্বাচন সম্পন্ন করার গুরুদায়িত্ব এখন নির্বাচন কমিশনের। একইভাবে এটি সফল করার দায়িত্বও অনেকাংশে নির্বাচন কমিশনের। প্রতিটি ইভিএম-এর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ হাজার টাকা এবং সর্বসাকল্যে বাজেটের পরিমাণ ৬শ' কোটি টাকা। দেশীয় প্রযুক্তিতে এই ইভিএম তৈরি হচ্ছে বুয়েটের বিজ্ঞানীদের তত্ত্বাবধানে গাজীপুরের মেশিন টু্যলস ফেক্টরিতে। ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচন সফল . . .
দু'হাতে বুক চেপে আমি সেই প্রশস্ততা অনুভব করলাম
নোটস ফ্রম এ প্রিজন বাংলাদেশ
মহীউদ্দীন খান আলমগীর
(পূর্ব প্রকাশের পর) হঠাৎ মন ও শরীরজুড়ে অবসাদ ও শূন্যতার অনুভূতি। মাসের পর মাস তীব্র যন্ত্রণা ও উদ্বেগের পর চারপাশের শূন্যতার মাঝেও এক ধরনের স্বস্তি পাচ্ছি। ঘৃণা ও হতাশা আমার হৃদয়ের প্রশস্ততা কমাতে পারেনি। দু'হাতে বুক চেপে আমি সেই প্রশসত্মতা অনুভব করলাম। ৬ থেকে ৮ জুলাই থেমে থেমে 'আ থাউজেন্ড স্পেস্ননডিড সানস' পড়লাম। বিখ্যাত আফগান লেখক খালেদির লেখা। এর আগে তাঁর প্রথম উপন্যাস 'দ্য কাইট রানার' পড়েছি। তাঁর রচনাশৈলীর চেয়ে বিষয়বস্তু আমাকে বেশি টানে। কিভাবে একজন অবহেলিত ও হতদরিদ্র . . .