মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শনিবার, ২৩ এপ্রিল ২০১১, ১০ বৈশাখ ১৪১৮
আমু বিএলএফ লিডার হিসেবে মুক্তিযুদ্ধ করেছেন
মুহম্মদ শফিকুর রহমান
এতদিন চলছিল স্বাধীনতার ঘোষণা বিতর্ক_জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষক না বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠক? বিএনপি বলছে, জিয়াউর রহমানই স্বাধীনতার ঘোষক। আওয়ামী লীগ বলছে, বঙ্গবন্ধু ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ প্রথম প্রহরে গ্রেফতার হবার পূর্ব মুহূর্তে স্বাধীনতার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে জাতিকে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্বান জানান এবং বঙ্গবন্ধুর এই ঘোষণা তৎকালীন ইপিআর বর্তমান বিজিবির মাধ্যমে দেশব্যাপী প্রচার করা হয়। বঙ্গবন্ধুর সেই ঘোষণাই চট্টগ্রাম বেতার কেন্দ্র থেকে জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর পৰে পাঠ করেন। এদিক থেকে জিয়া . . .
হারিয়ে যাচ্ছে কৃষি জমি
শাহজাহান মিয়া
সম্প্রতি দিন দশেকের ব্যবধানে তিনবার বিশেষ কারণে রাজধানী ঢাকার পূর্ব ও পূর্ব-উত্তরাঞ্চল এবং পূর্ব-দক্ষিণাঞ্চলে যেতে হয়েছিল। নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলার ওপর দিয়ে যাওয়ার সময় রাস্তার দু'ধারে ধানক্ষেত ও কৃষি জমিতে বিভিন্ন বাহারি নামের নানা হাউজিং কোম্পানির রঙবেরঙের সাইনবোর্ড দেখে মনটা চমকে ওঠে। রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় সরকারী উদ্যোগে নদী থেকে বালু উত্তোলন করে নির্মাণাধীন বহুল আলোচিত পূর্বাঞ্চল হাউজিং প্রকল্পও দেখা গেল। কয়েকদিন পর পাশের নরসিংদী জেলার ভেতর দিয়ে যাওয়ার সময় একই দৃশ্য প্রত্যক্ষ করতে . . .
তিনি মারাত্মক ভুল করেছিলেন ॥ নোটস ফ্রম এ প্রিজন বাংলাদেশ
মহীউদ্দীন খান আলমগীর
(পূর্ব প্রকাশের পর) এই যখন অবস্থা, কাশিমপুর জেলে বসে তখন ড. ইউনূসকে সশস্ত্র বাহিনী সমর্থিত, ড. ফখরুদ্দীন পরিচালিত অনির্বাচিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের গুণগান করতে দেখে আরেকবার বিস্মিত হলাম। আমাদের অনেকের কাছেই মনে হলো দেশে-বিদেশে প্রকাশিত তার উদ্বেগ এবং কার্যকলাপে তার দ্বৈত আচরণ, পক্ষপাতিত্ব এবং সুযোগসন্ধানী চরিত্রের প্রতিফলন ঘটেছে। এতে তার নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্তির ঔজ্জ্বল্য কালিমালিপ্ত হয়েছে। প্রথম এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধসহ বড় বড় যুদ্ধে জয়ী হয়ে বিজয়ী এবং বিজিতরা তাদের সশস্ত্র বাহিনী ভেঙ্গে তাদেরকে সমাজে . . .
স্মরণ
শহীদ মসিয়ুর রহমান
২৩ এপ্রিল এলেই মনে পড়ে যায় প্রাদেশিক সরকারের আইনমন্ত্রী শহীদ মসিয়ুর রহমানের কথা। ১৯৭১-এর ২৫ মার্চ কালরাতে যশোর শহরের বাড়ি থেকে তাঁকে ধরে নিয়ে যায় পাকবাহিনী। প্রায় এক মাস নির্যাতনের পর ২৩ এপ্রিল মারা যান তিনি। যদিও তাঁর লাশটি পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তাঁর পরিবার প্রতিবছর দিনটি পালন করে। গ্রামের বাড়িতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু নতুন প্রজন্ম তাঁর সম্পর্কে খুব কম জানে। শহীদ মসিয়ুর রহমান ১৯১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে জন্মগ্রহণ করেন যশোরের চৌগাছা উপজেলার সিংহঝুলি গ্রামে। ষষ্ঠ শ্রেণী পর্যন্ত লেখাপড়া করেন . . .