মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
শুক্রবার, ১১ মার্চ ২০১১, ২৭ ফাল্গুন ১৪১৭
ভাল মানুষ সব কালেই থাকে
নাদিরা মজুমদার
স্যার নিকোলাস জর্জ উইনটন নিকোলাস জর্জ উইনটন অনেকদিনই অজানা ছিলেন। সবার কাছে তো বটেই, এমনকি তাঁর স্ত্রী গ্রিট পর্যন্ত স্বামীর জীবনের কয়েক বছরের ইতিহাস জানতেন না। আজীবনের সঙ্গীই জানতেন না আর আমরা তো বাইরের লোক। ১৯৮৮ সালের কথা। স্ত্রী গ্রিটের মাথায় ভূত চাপল যে বাড়ির চিলেকোঠা আর পরিষ্কার না করলেই নয়। যেমন ভাবা তেমনি কাজ। সেই চিলেকোঠা পরিষ্কার করতে করতে হাতে পড়ল হলদে হয়ে যাওয়া এক খেরোখাতা, কম করে ৫০ বছরের পুরনো; নিছক কৌতূহলবশে পাতা ওল্টাতে ওল্টাতে বুঝলেন, এতদিনের একটা রহস্যের মীমাংসা দিচ্ছে খেরোখাতাটি। . . .
ঐতিহাসিক ১১ মার্চ
এম. আর. মাহবুব
ভাষা আন্দোলন তথা এ দেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে ১১ মার্চ একটি গৌরবোজ্জ্বল দিন। ১৯৪৮ সালের ১১ মার্চ রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই দাবিতে সর্বাত্মক সাধারণ ধর্মঘট পালিত হয়। এটাই ছিল ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস তথা পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার পর এ দেশে প্রথম সফল হরতাল। ১১ মার্চ প্রতিবাদের যে ভিত রচনা হয়েছিল তারই সূত্র ধরে তৎকালীন সরকার ১৫ মার্চ রাষ্ট্রভাষা চুক্তি স্বাৰর করতে বাধ্য হয় এবং এই সংগ্রামের পরিপূর্ণতা লাভ করে ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রম্নয়ারিতে। ১৯৪৮ সালের ১১ মার্চের সিঁড়ি ধরেই ভাষা আন্দোলন, স্বাধিকার আন্দোলন . . .
মিসরে গণবিপ্লবের নেপথ্যে
শারমিন আহমেদ
(পূর্ব প্রকাশের পর) এই বিপস্নব আমার ধারণাকে ভুল প্রমাণিত করেছে।" ১১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার হোসনি মোবারক পদত্যাগ করলেন। আমর ইতোমধ্যে ইথিওপিয়া থেকে কোস্টারিকায় কাজে যোগ দিয়েছে। ১৮ ফেব্রম্নয়ারি আমার কোস্টারিকা যাবার কথা। বাঁধাছাদা করছি। ১৪ ফেব্রুয়ারি আমর ফোন করল ভ্যালেন্টাইন দিবসের শুভেচ্ছা জানাতে। বলল, 'ভ্যালেন্টাইন দিবসের উপহার স্বরূপ আমি তোমাকে নিয়ে যেতে চাই মুক্ত মিসরে।' আমি বললাম, 'কবে?' সে বলল, 'এই ১৬ তারিখে।' ১৮ ফেব্রম্নয়ারি শুক্রবার আমরা বিশাল জনতার সঙ্গে যোগ . . .
সিডনির মেলব্যাগ
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভাষণটিকে আন্তর্জাতিক করে তুলুন
অজয় দাশ গুপ্ত
কোন জাতির ইতিহাস ও ইতিহাস চেতনা দেশ ও রাষ্ট্রের আদর্শিক হাতিয়ার। যেসব রাষ্ট্র এখন শীর্ষে, অর্থনীতি, রাজনীতি বা অন্যান্য ৰেত্রে অগ্রসর, এদের অতীত অবশ্যই সমৃদ্ধ। অন্য কোন আলোয় উদ্ভাসিত হলে নিজের পায়ে দাঁড়ানো সম্ভব হয় না। মিডিয়া যাঁদের হাতে, যাঁরা বিশ্ব মিডিয়ার নিয়ন্ত্রক তাঁদের কীর্তি বা জয়জয়কার মেঘে ঢাকা তারা কিছু নয়। বরং নিয়ন্ত্রণে থাকায় নিজেদের মতো করে বিশ্বকে দেখা ও দেখানোর কাজটা এদের জন্য সহজই বটে। একটা ছোট উদাহরণ দিয়ে বোঝানো যেতে পারে। ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স বা ইতালির সকার খেলোয়াড়, বিশ্ববরেণ্য . . .