মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ২৯ আগষ্ট ২০১১, ১৪ ভাদ্র ১৪১৮
ঘরমুখো যাত্রী ॥ পথের নিরাপত্তা
নিয়ামত হোসেন
রাজধানী থেকে প্রতিবছরই হাজার হাজার মানুষ ঈদের ছুটিতে বাড়ি যায়। প্রতিবছর বাস, লঞ্চ, ট্রেনে প্রচণ্ড ভিড় হয়। প্রতিবছরই ঘুরমুখো যাত্রীদের অনেকেই পড়েন নানা ঝামেলায়। এবারও কি সে ধরনের ঝামেলায় পড়বে যাত্রীরা? কিছুদিন আগেই ধারণা করা হচ্ছিল যে, এবার নতুন একটা ঝামেলা সৃষ্টি হয়েছে। সেই ঝামেলাটাই বড় হয়ে দেখা দেবে এবার। বহু যাত্রীর জন্য সেটা হবে খুবই বিড়ম্বনার। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে সে ঝামেলাটিও অনেকখানিই কেটে গেছে। ঝামেলাটি হয়েছিল রাস্তার ভাঙ্গা অবস্থা নিয়ে। কয়েকদিন ধরে বেশ বৃষ্টি হচ্ছিল। কয়েকদিনের ভারি বৃষ্টির . . .
রিপোর্টারের ডায়েরি
চণ্ডিগড়ের পথে
২৪ জুন, শুক্রবার। অনেকদিন পর ভারতে যাচ্ছি। সেই ২০০৭ সালে গিয়েছিলাম সার্ক সামিট কভার করতে। এরপর আর যাওয়া হয়নি। ভারতকে আমার কেন যেন বিদেশ বলে মনে হয় না। কারণ ওই দেশটির সংস্কৃতির সঙ্গে আমাদের সংস্কৃতির অনেক মিল। আর পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতি আর আমাদের সংস্কৃতি তো অভিন্ন সুতায় গাঁথা। আসলে আমরা তো ভারতীয় উপমহাদেশের একটি অংশ। ১৯৪৭ সালের দেশ বিভাগের কারণে আমরা এখন আলাদা দেশের বাসিন্দা। আমার এবারের গন্তব্য চণ্ডিগড়। অবশ্য দিলস্নী হয়েই যেতে হবে। চণ্ডিগড় নামটি আগে শুনলেও এটা সম্পর্কে আসলে আমি ধারণা পাই তত্ত্বাবধায়ক . . .
নির্বিঘ্নে ঘরে ফেরা নিশ্চিত করুন
প্রিয়জনের সানি্নধ্যে ঈদ করার জন্য ঘরমুখো মানুষ ঢাকা ছাড়ছেন। সাপ্তাহিক ছুটি এবং ঈদের ছুটি মিলিয়ে এবার নয় দিনের ছুটি পাওয়া গেছে। এ যেন ঘরমুখো মানুষের বাড়তি এক পাওয়া। সে জন্য ক'দিন আগে থেকেই ঘরমুখো মানুষ কর্মস্থল ছাড়া শুরু করেছে। ক'দিন ধরে রাজধানীর লঞ্চ, বাসসহ রেল স্টেশনে ঘরমুখো মানুষের উপচেপড়া ভিড়। রাস্তা খারাপ থাকায় ট্রেন ও লঞ্চে যাত্রীদের বাড়তি চাপ। সড়কের দুরবস্থার কারণে কোন কোন রুটে দুই ঘণ্টার রাস্তা পাড়ি দিতে সময় লাগছে ছয় থেকে সাত ঘণ্টা। কমলাপুর থেকে দেড় থেকে ২ ঘণ্টা দেরিতে বিভিন্ন গন্তব্যে . . .
মধ্যবিত্তের আবাসন প্রকল্প
রাজধানীসহ দেশের কয়েকটি প্রধান শহরে আবাসন সমস্যা তীব্র হয়ে উঠেছে। এর প্রধান কারণ জনসংখ্যা বৃদ্ধি। প্রতিবছর কাজের সন্ধানে বিপুলসংখ্যক মানুষ শহরে এসে ভিড় করছে। তাদের সবার জন্য আবাসনের সুব্যবস্থা এখনও গড়ে ওঠেনি। বিশেষ করে মধ্যবিত্তের জন্য এ সমস্যাটি খুবই প্রকোট। এ কারণেই জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপৰ রাজধানীর মধ্যবিত্তের জন্য একটি আবাসন প্রকল্প হাতে নিয়েছে। জানা গেছে, তারা এ লৰ্যে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ১৭টি ১৬ তলা ভবন নির্মাণ করবে। এসব ভবনে প্রধানত মধ্যবিত্তের বসবাসের উপযোগী ১ হাজার ২০টি ফ্ল্যাটের ব্যবস্থা থাকবে। . . .