মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ২০ এপ্রিল ২০১১, ৭ বৈশাখ ১৪১৮
অদ্ভুত ও আশ্চর্য ব্যক্তিদের মিলন
বোরহানউদ্দিন খান জাহাঙ্গীর
বাংলাদেশে সেকু্যলার রাষ্ট্র প্রবর্তিত হয়েছে। এই প্রবর্তনা 'ধর্ম', 'নীতি' ও 'রাজনীতির' নতুন ধারণা তৈরি করেছে। বাংলাদেশে সেকু্যলারিজমের যারা বিরোধী, তাদের ধারণা সেকু্যলারিজম পশ্চিম থেকে উদ্ভূত। দৰিণ এশিয়ায়, সেকু্যলারিজমের উদ্ভব ঘটেছে এই সব সমাজের রাজনৈতিক সমস্যা থেকে ও ভয়ঙ্কর ধর্মজ দাঙ্গা-হাঙ্গামা থেকে। সেকু্যলারিজমের উদ্ভব নিবিড়ভাবে যুক্ত আধুনিক জাতি-রাষ্টের সঙ্গে। দুই দিক থেকে সেকু্যলাজিমকে বৈধতা দিয়েছে আধুনিক জাতি-রাষ্ট্র। প্রথমত, চেষ্টা করা হয়েছে একই ধর্মের বিবদমান . . .
জঙ্গী ও ধর্মান্ধতা বাংলাদেশের উন্নয়নে অন্যতম বাধা
ইকবাল আজিজ
গত চলিস্নশ বছরে বাংলাদেশে জনসংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে; কিন্তু আধুনিক শিৰিত বিজ্ঞানমনস্ক মানুষের সংখ্যা বাড়েনি। বেড়েছে বিপুল সংখ্যক কুসংস্কারাচ্ছন্ন ধর্মান্ধ মানুষ যাদের মোটেই ধার্মিক বলা যায় না। কারণ ধার্মিক বলতে আমাদের চোখের সামনে যে মানুষের ছবি ভেসে ওঠে তিনি অবশ্যই মানবতাবাদী, সহানুভূতিশীল ও কল্যাণকামী। এ এক গভীর দুভার্গ্যজনক পরিস্থিতি। কখনও কখনও মনে হয়, মুক্তিযুদ্ধের আগে আমাদের সমাজে আধুনিক যুক্তিবাদী শিৰিত মানুষের যে সংখ্যা ছিল এখন তার সংখা অনেক কমে গেছে সমাজজীবন থেকে। এর জন্য দায়ী কে? আমার মনে . . .
সংবিধান সংশোধনে ঐকমত্যের বিকল্প নেই
ড. হারুন রশীদ
সংবিধান সংশোধন নিয়ে রাজনৈতিক মহলে এখন সরগরম চলছে। বিশেষ করে বিরোধী দল বিএনপি সংবিধান সংশোধনের ব্যাপারে কী ভূমিকা নেয়, সেটাই এখন আলোচনায় গুরুত্ব পাচ্ছে। আর সরকারও শেষ পর্যন্ত কতটা অবিতর্কিত এবং ঐকমত্যের ভিত্তিতে সংবিধান সংশোধন করতে পারে, সেটিও দেখার বিষয়। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, রাজনৈতিক বাগাড়ম্বর পরিহারসহ সংবিধানকে কতটা জনস্বার্থসংশিস্নষ্ট ও যুগোপযোগী করে সংশোধন করা যায় সেদিকেই সকলের দৃষ্টি দেয়া উচিত। উচ্চ আদালতের রায়ে সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনী বাতিল হওয়ার পর সংবিধান সংশোধনের বিষয়টি অত্যন্ত জরুরী হয়ে . . .