মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
বুধবার, ১৩ মার্চ ২০১৩, ২৯ ফাল্গুন ১৪১৯
বীরের বেশে মাঠ ছাড়ল টাইগাররা
‘রোবট টেস্ট’ ড্র
খেলা হলো পাঁচদিন। প্রতিটি দিনই ব্যাটসম্যানদের দখলে থাকল ম্যাচ। যে ‘বানরে’র মতো চঞ্চলতা দেখাল, সে এমন ব্যাটিং উইকেট থেকে কিছুই পেল না। আর যে ‘রোবটে’র মতো দাঁড়িয়ে থাকতে পারল, সে ভূরিভূরি রান নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারল। টেস্টটিকে তাই ‘রোবট’ টেস্ট না বলে পারা যাচ্ছে না। গলে খেলা হলেও সব নৈপুণ্য দেখানো ব্যাটসম্যান যে ‘রোবট’ হয়েই উইকেটে আঁকড়ে থেকে সাফল্য কুড়িয়ে নিয়েছেন। এমন টেস্টে বাংলাদেশ দল পেল সেরা সাফল্য। প্রথমবার শ্রীলঙ্কার মতো শক্তিশালী দলের বিরুদ্ধে পুরো . . .
শেষ পর্যন্ত আমরা পেরেছি ॥ মুশফিকুর রহীম
স্পোর্টস রিপোর্টার, গল, শ্রীলঙ্কা থেকে ॥ সোমবার বাংলাদেশের হয়ে প্রথম টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরির ইতিহাস গড়ে ম্যাচ-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে বীরের বেশে হাজির হয়েছিলেন টাইগার অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। আর মঙ্গলবার এলেন দেশকে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম ড্রয়ের স্বাদ নিয়ে। দেখে মনে হচ্ছিল, এই মাত্র কোন রাজ্য জয় করে এসেছেন। ঠিক তাই, শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে কখনই বাংলাদেশ দাপটের সঙ্গে লড়াই করতে পারেনি। ইনিংস ব্যবধানে হারাটাই ছিল নিয়মিত চিত্র। আর এবার সেই লঙ্কানদেরই দাঁড়াতে দেয়নি টাইগাররা! শ্রীলঙ্কান জাতীয় ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে . . .
গলে শেষ দিনেও রেকর্ড
স্পোর্টস রিপোর্টার, গল (শ্রীলঙ্কা) থেকে ॥ বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা গল টেস্ট যেন ‘রেকর্ডে’র টেস্ট। প্রতিটি দিনই যেন রেকর্ড আর রেকর্ড। ম্যাচের পঞ্চম দিনেও আরেকটি রেকর্ডের দিনের দেখা মিলল। এবার সাঙ্গাকারা আর দিলশানের শতকে গলে সবচেয়ে বেশি ৮টি শতক হওয়ার রেকর্ড হলো। শুধু তাই নয়, গলে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ১৬১৩ রান হওয়ার রেকর্ডও যুক্ত হলো। এর সঙ্গে যে রেকর্ডটি ম্যাচে যুক্ত হলো সেটিই সবার উপরে থাকছে, এক ম্যাচে ২০০৫ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচেই শুধু ৮ শতক হয়েছিল। এবার বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা . . .
ড্রর মাঝেও জয়ের আনন্দ পাচ্ছি
রকিবুল হাসানের মতামত
টাইগারদের নজরকাড়া নৈপুণ্য আর প্রতিরোধে ড্র মেনে নিতে বাধ্য হয় লঙ্কানরা। এই ড্র অনেকের দৃষ্টিতে জয়ের সমান। মোদ্দা কথা ম্যাচ ড্র হলেও নৈতিক জয়টা মুশফিকদেরই। গল টেস্টের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কা ৪ উইকেটে ৫৭০ রান করার পর অতীত পারফর্ম্যান্সের পুরাবৃত্তির শঙ্কা জেগেছিল অনেকের মনে। কিন্তু লঙ্কান বোলারদের হতাশায় ডুবিয়ে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে ৬৮ রানের লিড নিয়ে চমক সৃষ্টি করে। প্রথমবারের মতো ছয় শতাধিক রানের রেকর্ড গড়ে বাংলাদেশ। মুশফিকুর রহীমের ডাবল সেঞ্চুরি, আশরাফুলের ১৯০ রানের পর নাসির হোসেনও শত রান করেন। বাংলাদেশের . . .
রোনাল্ডোর প্রশংসায়...
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বের অন্যতম সেরা একজন ফুটবলার। গোলের পর গোল করাই যার নেশা। দুর্দান্ত পারফর্মেন্সে নিজে আলোকিত, সঙ্গে দলও। রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগীজ উইঙ্গার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো এখন তেমনি। দলের প্রাণভোমরা, অধিনায়ক না হয়েও নেতৃত্ব দেন সামনে থেকে। এমন একজন ফুটবলারকে পেয়ে স্বভাবতই খুশি রিয়াল শিবির। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে যাকে টানতে প্রায় রেকর্ড ৮০ মিলিয়ন পাউন্ড খরচ করতে হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদকে, ২০০৯ সালে। তবে রোনাল্ডো নিজের নামের সুবিচার করে যাচ্ছেন বার্নাব্যুতে আসার পর থেকেই। ফলে রোনাল্ডোর . . .
লঙ্কার বিরুদ্ধে ড্রয়ে জয়ের আনন্দ
শাকিল আহমেদ মিরাজ ॥ গল টেস্টের ফল ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে স্রেফ ‘ড্র’ হিসেবেই। আজি হতে শতবর্ষ পরে...নিজেদের পরিসংখ্যানের খেরোখাতা খুঁজতে গিয়ে বলা হবে ‘২০১৩ সালের মার্চে বাংলাদেশের হয়ে মুশফিকুর রহীম যে প্রথম টেস্ট ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন, তাতে প্রতিপক্ষ ছিল শ্রীলঙ্কা।’ সংখ্যার বিচারে ২০৭৮তম টেস্ট এটি খেলাটির পৌনে দুই শ’ বছরে উইলো-গোলকের লড়াইয়ে অনেক, অনেক উত্তেজনার, রোমাঞ্চের টেস্টও দেখেছে ক্রিকেটবিশ্ব। সেখানে নিদেন এক ম্যাড়মেড়ে ড্র ম্যাচের আনন্দ জয়ের সমান হয় কী করে! . . .
টেস্টে জেগে ওঠার ইঙ্গিত টাইগারদের
জাহিদুল আলম জয় ॥ ওয়ানডে, টি২০ ম্যাচে এখন যে কোন দলকে হারানোর ক্ষমতা রাখে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। গত কয়েক বছর একদিবসীয় ক্রিকেটে নজরকাড়া ধারাবাহিক সাফল্য পেয়েছে টাইগাররা। কিন্তু ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যাদার ঘরানায় (টেস্ট) সাফল্য পেতে রীতিমতো সংগ্রাম করতে হচ্ছিল! ক্রিকেটের নিয়ামিক সংস্থাকে (আইসিসি) এজন্য দায়ী করাই যায়! তাদের অদ্ভুতুড়ে নিয়মের কারণে পাঁচ দিনের ক্রিকেটে ঠিকমতো খেলার সুযোগই পাচ্ছেন না মুশফিক, আশরাফুল, শাকিব, তামিম, নাসিররা। হাতেগোনা যা খেলার সুযোগ মেলে তাও আবার খর্বশক্তির প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্ধে। . . .
শেষ আটে চোখ বেয়ার্ন মিউনিখের
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রথম লেগে ৩-১ ব্যবধানে জয়। ফিরতি লেগ আজ ঘরের মাঠে। দুর্দান্ত দাপটে এগিয়ে চলা বেয়ার্ন শিবির আত্মবিশ্বাসে ভরপুর। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শেষ আটে পাখির চোখ করে আছে জার্মান জায়ান্টরা। প্রথম লেগে এগিয়ে যাওয়া ও সাম্প্রতিক পারফরমেন্সে এক করলে, বেয়ার্নকে অপ্রতিরোধ্যই বলে মনে হবে। এমন অবস্থায় চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগে আজ মাঠে নামছে তারা। ঘরের মাঠ এলিয়াঞ্জ এরিনাতে তাদের প্রতিপক্ষ ইংলিশ ক্লাব আর্সেনাল। যাদের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার রাস্তাটা ভীষণ কঠিন। এমিরাত স্টেডিয়ামে . . .